.:সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত যে কোন সমস্যার তথ্য প্রদান করুন:.    Back to Home | Search by Id 
 


Your IP Address: 54.167.62.170
Your Client IP Address: 54.167.62.170
Your Server IP Address: 54.167.62.170
Your Browser: CCBot/2.0 (http://commoncrawl.org/faq/)

সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত যে কোন সমস্যার তথ্য প্রদান করুন
প্রদানকারীর নাম : *

ফোন নম্বর: *


ই-মেইল : *


স্হান, জেলা : *

বর্ণনা : *

সমস্যার/ক্ষতিগ্রস্থ স্থানের ছবি (যদি থাকে):
(Max size : 2MB)

আরো ছবি দিন


কোড নম্বরটি লিখুন



তথ্য প্রদানে কোনো কারিগরী ত্রুটির সম্মুখীন হলে যোগাযোগ করুন - ৯৫৭৫৫২৭ এই নম্বরে, E-mail : programmer1@rthd.gov.bd

 
ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রাপ্ত সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত তথ্য
Print  
9330. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : kushtia
তারিখ ও সময় : 14 Jan, 2018 15:34:34
বর্ণনা :

কুষ্টিয়া মহাসড়কঃ বার মাইল থেকে কুষ্টিয়া মজমপুর গেট এই রাস্তাটা এক বছর পরপর ঠিক করা হয় । কিন্তু এত ভাল মানের কাজ হয় যে, এই রাস্তাই হানিফ সাহেব বা অন্য নেতারা যাতায়াত করে  না। আপনারা কিভাবে কে ডিজিটাল করবেন আমার কাছে অবাক লাগে নিজেরা রাস্তাই গাড়ী চালান কোটি টাকার নিচে না আর সবাই যে রাস্তা ব্যবহার করে তাদের কাজের জন্য এই দেশের নেতাদের টাকা থাকে না হা হা হা হা।   


জবাব :

See Reply

ঝিনাইদহ-কুষ্টিয়া-পাকশী ফেরী-দাসুরিয়া (এন-৭০৪) একটি গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় মহাসড়ক, যার মোট দৈর্ঘ্য ৮২ কি:মি:। উক্ত মহাসড়কের ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (শান্তিভাঙ্গা) হতে শুরু হয়ে কুষ্টিয়া শহরের মধ্য দিয়ে মজমপুর রেলগেট অতিক্রম করে লালন শাহ সেতু এপ্রোচ রোডের আগে বার মাইল পর্যন্ত কুষ্টিয়া সড়ক বিভাগের অন্তর্ভুক্ত, যার দৈর্ঘ্য ৪৩ কি:মি:। বর্ণিত জাতীয় মহাসড়কের ৪৩ কি:মি: এর মধ্যে মজমপুর রেলগেট হতে ভেড়ামারা বারো মাইল পর্যন্ত ১৭.০০ কি:মি: অংশে ২০১৩-২০১৪ অর্থ বছরে ওভারলে কাজ করানো হয়। তারপর অদ্যবধি বর্ণিত সড়কাংশে বড় ধরনের কোন সংস্কার কাজ করা হয়নি। বিগত বর্ষা মৌসুমে একটানা বৃষ্টিপাতের কারণে মহাসড়কটির উল্লেখিত অংশে বেইস মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় পাশাপাশি অসংখ্য পটহোলস ও ছোট-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে, যা বিভাগীয় কিছু অংশে এইচবিবি এবং অন্যান্য অংশে পটহোলস মরোমত করে যান চলাচলের উপযোগী করা হয়েছে। উল্লেখ্য, মজমপুর রেলগেট হতে বারো মাইল পর্যন্ত সড়কের ক্ষতিগ্রস্থ অংশের পেভমেন্টের বিভিন্ন লেয়ার পরীক্ষা করে দেখা যায় যে, পেভমেন্টের বিভিন্ন লেয়ার (ISG হতে বেইস টাইপ-১ পর্যন্ত) এর পুরুত্ব ৬০০-৬৫০ মিঃমিঃ, যা সড়কের বর্তমান ডিজাইন ও লোডের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। ফলে রাস্তাটি প্রতিনিয়ত ধারণ ক্ষমতার অধিক ভারী ট্রাক, বাসসহ বিভিন্ন ধরণের যান ভোমরা ও বেনাপোল স্থল বন্দর হতে উত্তরাঞ্চলসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যাতায়াত করায় পেভমেন্টের ক্ষতির পরিমান বৃদ্ধি পেয়েছে। এমতাবস্থায়, রাস্তা খারাপের কারণে জনদূভৌগের জন্য সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হওয়ার আশংকায় স্থানীয় সংসদ সদস্য জনাব হাসানুল হক ইনু, ৭৬-কুষ্টিয়া-২ ও জনাব মাহবুব উল আলম হানিফ, ৭৭-কুষ্টিয়া-৩ মাননীয় মন্ত্রী, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় বরাবর ডিও লেটার প্রদান করেন। তৎপ্রেক্ষিতে, সড়কের গুরুত্ব অনুধাবন করে  সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রনালয়ের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের রক্ষণাবেক্ষণ অধিশাখার স্মারক নং-৩৫.০০.০০০০.০১৫.১৪.০৫২.১৪.০৫২.১৬-৭১৫, তারিখ: ১৮/১২/২০১৭ এর মাধ্যমে বর্ণিত সড়কাংশে  (মজমপুর রেলগেট হতে লালন শাহ সেতু এপ্রোচ সড়ক পর্যন্ত) পিএমপি-সড়ক (মেজর) কর্মসূচীভূক্ত করার অনুমতি প্রদান করে। পরবর্তীতে বর্ণিত কাজের প্রাক্কলন প্রস্তুতপূর্বক গত ০১/০১/২০১৮ তারিখে দরপত্র আহবান করা হয়, যা আগামী ০৫/০২/২০১৮ তারিখে উন্মুক্ত করা হবে। আশা করা যায় দরপত্র উন্মুক্তকরণের পর মুল্যায়ন পূর্বক কার্যাদেশ প্রদানের মাধ্যমে আগামী বর্ষা মৌসুমের পূর্বেই কাজটি যথাযথভাবে সম্পাদন করে জনদূভোগ লাঘব করা সম্ভব হবে।


9327. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Sylhet
তারিখ ও সময় : 21 Dec, 2017 12:38:06
বর্ণনা :

Beanibazar there sylhetwr Rasta porjonto eto karap rasta.tik korle shubida hoto potho charider


 


জবাব :

See Reply

বিয়ানীবাজার থেকে সিলেট আসতে হলে সিলেট সড়ক বিভাগাধীন দুটি সড়ক ব্যবহার করতে হয়। এর মধ্যে রাজনগর-কুলাউড়া-জুড়ি-বড়লেখা সড়ক ব্যবহার করে বিয়ানীবাজার থেকে চারখাই পর্যন্ত ১৮ কিলোমিটার এবং সিলেট-গোপালগঞ্জ-চারখাই-জাকিগঞ্জ সড়ক ব্যবহার করে চারখাই থেকে সিলেট পর্যন্ত ৩২ কিলোমিটার অর্থাৎ মোট ৫০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে সিলেট আসতে হয়।

গত বর্ষা মৌসুমের দীর্ঘস্থায়ী ও মাত্রাতিরিক্ত বৃষ্টিপাত  এবং বন্যায় উক্ত সড়কসমূহের বিভিন্ন কিলোমিটারের পেভমেন্ট মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ইতোমধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত সড়কাংশে বিভাগীয়ভাবে রক্ষণাবেক্ষণ কাজ করে যানবাহন চলাচল অক্ষুণ্ণ রাখা হয়েছে। এছাড়া উক্ত সড়কদ্বয়ের ক্ষতিগ্রস্ত অংশে আঞ্চলিক মহাসড়ক যথাযথমানে উন্নীতকরণ প্রকল্প ও পিএমপি (মেজর) এর আওতায় মেরামতের জন্র দরপত্র আহবান করা হয়েছে। বর্তমানে দরপত্র মূল্যায়ন প্রক্রিয়াধীন। বর্ণিত সড়কাংশের কাজগুলো সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করা হলে বিয়ানীয়বাজার থেকে সিলেট পর্যন্ত সড়ক সম্পূর্ণরুপে ভাল অবস্থায় উপনীত হবে এবং জনসাধারণের চলাচল সুগম হবে।


9322. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : বিপুলাসার- খিলা- লাকসাম - লালমাই - পদুয়ারবাজার সড়ক।
তারিখ ও সময় : 19 Dec, 2017 13:34:00
বর্ণনা :

কুমিল্লার বিপুলাসার হতে লালমাই পর্যন্ত সড়ক টির বর্তমান অবস্থা খুবেই খুবেই খারাপ, বেহাল দশা, বড় বড় খাদ, পটহোল হয়ে সড়ক টি এখন ভেঙে চুরে একাকার হয়ে গেছে। কিন্তু কোন মেরামত কাজই হচ্ছেনা কেন এটাই মানুষ জানতে চায়।  দেশের দশটি সড়ক বিভাগের জোনের মধ্যে অতিগুরুত্তপূর্ণ এই সড়ক টির দ্রুত মেরামতের জন্য পদক্ষেপ নিতে মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন জানাই।


জবাব :

See Reply

বর্ণিত স্থানসমূহ কুমিল্লা সড়ক বিভাগাধীন কুমিল্লা-লালমাই-চাঁদপুর-লক্ষ্মীপুর-বেগমগঞ্জ সড়ক (আর-১৪০) এবং লালমাই-লাকসাম-সোনাইমুড়ী সড়ক (আর-১৪১) এর অন্তর্গত। ইতোমধ্যে পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড হতে লালমাই পর্যন্ত এবং লাকসাম বাইপাস হতে বিপুলাসার পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত সড়কাংশ বিভাগীয়ভাবে ইট/খোয়া ও বালি দ্বারা এবং পিএমপি (মাইনর) এর আওতায় এইচবিবিসহ কার্পেটিং ও সীলকোট এর মাধ্যমে মেরামত করে যানবাহন চলাচলের জন্য সচল রাখা হচ্ছে।

 

উল্লেখ্য যে, বর্ণিত সড়ক ২টির গুরুত্ব এবং বাস্তবতা বিবেচনায় বর্তমান সড়কার সড়ক দুটিকে ৪-লেনে উন্নীতকরণের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। তদানুযায়ী কুমিল্লা (টমছমব্রীজ)-নোয়াখালী (বেগমগঞ্জ) আঞ্চলিক মহাসড়ক ৪-লেনে উন্নীতকরণ শীর্ষক একটি প্রকল্প গত ২৪-১০-২০১৭ তারিখে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) কর্তৃক অনুমোদিত হয়েছে। বর্তমানে দরপত্রের কার্যক্রম শেষে কার্যাদেশ প্রদানের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। খুব শীঘ্রই প্রকল্পের বাস্তব কাজ শুরু হবে। এখানে বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, প্রস্তাবিত উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে স্থায়ীভাবে উন্নয়ন কাজ সম্পাদনের পূর্ব পর্যন্ত বর্ণিত সড়কাংশ বিভাগীয়ভাবে অতীব ক্ষতিগ্রস্ত সড়কাংশসমূহ মেরামত করতঃ যোগাযোগ ব্যবস্থা সচল রাখার সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।


9320. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Saidpur, Rangpur
তারিখ ও সময় : 14 Dec, 2017 08:07:39
বর্ণনা :

Problem: Poor management of BRTC Bus      service


Date: 14 December, 2017


Time of departure from Saidpur: 12.00 pm.


The journey is from Saidpur to Rajshahi. After buying ticket from Saidpur BRTC Counter(Ticket no. A 4), i ride on the bus. But i have not got any seat and have to stand till Rangpur. Because, all seat are filled earlier, though they give me a ticket with a seat!


Why any one have to stand stiil though he have a ticket with  Seat no.? 


Thanks Digital Bangladesh to give us nice internet coverage, as i am writing the complain during this journey.


waiting for a recponce or to see an improvement in this service.


Sorry for any mistake.



9319. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : gazipur
তারিখ ও সময় : 13 Dec, 2017 11:31:24
বর্ণনা :

pls stop the hydrolic horn from bus and truck .cry



9318. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Dhaka City
তারিখ ও সময় : 08 Dec, 2017 03:41:38
বর্ণনা :
আসসালামুআলাইকুম.

জনাব,

আমি ঢাকা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এ অধ্যয়ন রত একজন ছাত্র।


ক্লাস করার জন্য আমাকে এ প্রতিদিন ই এয়ারপোর্ট থেকে তেজগাঁও যেতে হয়।


পরিবহন হিসাবে বাসের কোন বিকল্প নেই আমার।


কিন্তু ইদানিং অধিকাংশ বাস সিটিং হয়ে যাওয়ায় বাস পেতে অনেক দেরি হয়ে যায়।


কারন সিটিং বাস এ ছাত্রদের কে উঠতে দেওয়া হয় না,উঠলেও হাফ পাস নেওয়া হয় না।


সিটিং বাসের কিছু কিছু আবার ধারন ক্ষমতার উপর লোক তোলে।


অনেক বাস ওয়ালা আবার বলে যে ১০ টাকার নিচে কোন ভাড়া নেই।


এখন কোন ব্যাক্তি ১ কিঃমিঃ গেলে তাকেও কি তাহলে ১০ টাকা দিতে হবে?


বাস মালিক রা এভাবে নিজের মনগড়া ভাড়া বানিয়ে লোকজন কে ঠকিয়ে চলেছে।


কেউ ঝামেলায় জড়াতে চায় না, সেইজন্য বাসওয়ালাদের চাহিদা মত ভাড়া দিয়ে চলে যায়।


বেশি সমস্যায় পড়ছি আমরা ছাত্র রা।


প্রায়ই কথা কাটাকাটি হয় বাস কন্ডাকটর দের সাথে।


কারন তারা ছাত্রদের থেকে হাফ ভাড়া নিতে নারাজ।


বিষয়টির একটি স্থায়ী সমাধান এর জন্য আপনার আন্তরিকতা কামনা করছি।


জবাব :

See Reply

অভিযোগ তদন্তপূর্বক জরুরী ভিত্তিতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ এবং একই সংগে মন্ত্রণালয়কে অবহিত করার জন্য উপপরিচালক (ইঞ্জিঃ), বিআরটিএ, ঢাকা বিভাগ ও সদস্য সচিব, রিজিওনাল ট্রান্সপোর্ট কমিটি (আরটিসি), ঢাকা মেট্রোপলিটন, ঢাকা-কে বিআরটিএ কর্তৃক নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।


9317. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : মহিপাল টু চৌমুহনী সড়ক
তারিখ ও সময় : 04 Dec, 2017 05:50:22
বর্ণনা :

ফেনী - নোয়াখালী জাতীয় মহাসড়কে( এন-১০৪)  সরু ব্রিজ ও কালভারট গুলি পুনর্নির্মাণ ও প্রশস্তকরন অতীব জরুরী হয়ে পড়েছে। অনেকগুলো কালভাট ও সেতু জরাজীর্ণ  ও পুরাতন এবং অপ্রশস্ত হওয়ায় এই সড়কে যানবাহন গুলো ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে।  দ্রুত ফেনী - নোয়াখালী সড়কের সরু ব্রীজ ও কালভাটগুলো পুনর্নির্মাণ করার জন্য  প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে  মাননীয় সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন জানাচ্ছি। আর দক্ষিণ - পশ্চিমাঞ্চলের একুশ জেলা এবং ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, শরিয়তপুর, মাদারীপুর  জেলাসমূহ হতে শরিয়তপুর হরিণা ফেরী এবং ভোলা - লক্ষ্মীপুর ফেরী হয়ে চট্টগ্রামে যাতায়াতের প্রধানতম সড়ক ফেনী- নোয়াখালী সড়কটির প্রায় ৩৩ কিলোমিটার দীর্ঘ ফেনী - নোয়াখালীর চৌমুহনী অংশটিকে  চারলেনে উন্নীতকরনের জন্য মাননীয় সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন জানাই। 


জবাব :

See Reply

ফেনী-নোয়াখালী জাতীয় মহাসড়কের ফেনীর মহিপাল হতে নোয়াখালীর চৌমুহনী পর্যন্ত সড়কাংশের এলাইনমেন্ট নোয়াখালী ও ফেনী সড়ক বিভাগের অন্তর্গত সওজ নেটওয়ার্কভুক্ত একটি জাতীয় মহাসড়ক। ফেনীর মহিপাল হতে সেবার হাট পর্যন্ত সড়কাংশ ফেনী সড়ক বিভাগের ও সেবারহাট হতে চৌমুহনী পর্যন্ত সড়কাংশ নোয়াখালী সড়ক বিভাগের অন্তর্গত। উক্ত সড়কের নোয়াখালী অংশের সরু কালভার্টসমূহ প্রশস্তকরণের ডিজাইন প্রণয়ন কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন আছে। ডিজাইন প্রণয়ন কার্যক্রম সম্পন্ন হলে উক্ত সড়কের নোয়াখালী অংশের সরু কালভার্টসমূহ প্রশস্তকরণের কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে। তাছাড়া উক্ত সড়কের নোয়াখালী সড়ক বিভাগের অংশের সেবারহাট হতে চৌমুহনী পূর্ব বাজার পর্যন্ত সড়কাংশ ৩০ ফুট প্রশস্ততায় উন্নীতকরণ করা হয়েছে। ভবিষ্যতে যানবাহনের সংখ্যা ও নেটওয়ার্কের গুরুত্ব অনুসারে ধারাবাহিকভাবে চাহিদা পূরণকল্পে উক্ত সড়কের ফেনীর মহিপাল হতে চৌমুহনী পর্যন্ত সড়কাংশ চারলেনে উন্নীতকরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


9316. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Chittagong
তারিখ ও সময় : 02 Dec, 2017 09:13:07
বর্ণনা :

Recent orders of weight restriction for 6, 10, 14 wheelers may be a great barrier for exporting product to the 7 siaters of India. The exporters will increase the price and it is may be not competitive for the importers of 7 sisters of India. As a result, most of the companies in Bamgladesh may lost their market in 7 sisters by which the government will loose a huge amount of foreign currrency. The weight restriction maybe good for inland, but for export, it is the worst decision by Road Transport Authority. The question is in the air that who has taken this decision and what is his personal interest by taking weight restriction decision for exporting goods. This is completely professionalism lackings by whom taken the decision.


The authority should think thousand times while taking decisions like this.


জবাব :

See Reply

এ বিষয়ে আপনার কোন মতামত বা পরামর্শ থাকলে তা জানানোর জন্য অনুরোধ করা হলো।


9315. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : পিরোজপুর
তারিখ ও সময় : 30 Nov, 2017 17:21:08
বর্ণনা :

বিষয়: সওজ কর্মচারীর দুর্নীতি ও সার্টিফিকেট জালিয়াতি করে পদোন্নতি গ্রহণ প্রসঙ্গে।


জনাব,


মো: নাসির উদ্দিন সরদার (পরিচিতি নং - ০৫২৯৮১), পিতার নাম: মহসিন আলি সরদার,মাতার নাম : জোবেদা বেগম। বর্তমানে ঢাকা ওয়ার্কশপ সাব-ডিভিশন অফিসে ওয়ার্কচার্জ ট্রেসার হিসাবে কর্মরত আছে। সে এমএলএসএস পদে ১৯৮৭ সালে মাস্টাররোল হিসাবে চাকুরীতে যোগদান করে। পরবর্তীতে ২০০০ সালে ট্রেসার হিসাবে ওয়ার্কচার্জ কর্মচারী হিসাবে যোগদান করে। ট্রেসার পদটির নূন্যতম যোগ্যতা এইচএসসি কিন্তু তার এইচএসসির কোন বৈধ সনদ নেই। সে দুর্ণীতির আশ্রয় নিয়ে সার্টিফিকেট জালিয়াতি করে ভূয়া এইচএসসির সনদ তৈরি করে ট্রেসার হিসাবে পদোন্নতি লাভ করে এবং সেই ভূয়া সনদ এখনও সর্বত্র ব্যবহার করে আসছে। তার ব্যক্তিগত নথি যাচাই করলেই তার জালিয়াতির তথ্য পাওয়া যাবে। বর্তমানে সে এই ভূয়া সনদ ব্যবহার করে ওয়ার্কচার্জ থেকে নিয়মিতকরনের চেষ্টা করে আসছে। এছাড়াও সে সওজ অফিসে অসংখ্য দুর্নীতি, কর্মকর্তাদের সাথে অসদাচারন এবং সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত এবং তার নামে পুলিশে মামলাও রয়েছে। তার দুর্ণীতি এবং সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের কারণে তার সহকর্মীরা আতঙ্কগ্রস্থ।


এই দুর্নীতিবাজ কর্মচারীর দুর্নীতি এবং সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে প্রতিকারমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ এবং তার এইচএসসি সার্টিফিকেট জালিয়াতি করে পদোন্নতি পাবার বিষয়টি তদন্ত করার যথাযথ কার্যক্রম গ্রহণের জন্য মহোদয়ের সদয় দৃষ্টি আকর্ষন করছি।



9314. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : বিপুলাসার- খিলা- লাকসাম - লালমাই - পদুয়ারবাজার সড়ক।
তারিখ ও সময় : 30 Nov, 2017 12:14:23
বর্ণনা :

নোয়াখালী - কুমিল্লা মহাসড়ক এর বিপুলাসার বাজার হতে খিলা বাজার হয়ে লাকসাম বাজার হয়ে লালমাই পর্যন্ত সড়ক টি এখন খুবেই খারাপ হয়ে পড়েছে, ভেঙে চুরে একাকার হয়ে পড়েছে যেন দেখার কেহ নেই, প্রতিদিন এই সড়ক এর উপর দিয়ে শত শত গাড়ি চলছে কিন্তু আবহাওয়া এখন শুকনো ও ভালো হওয়া সত্বেও রাস্তাটির কোন মেরামত কাজই হচ্ছেনা। দ্রুত মেরামত করে চলাচলের উপযোগী করতে সড়ক মন্ত্রণালয় এর নিকট আকুল আবেদন জানাই।


জবাব :

See Reply

বর্ণিত স্থানসমূহ কুমিল্লা সড়ক বিভাগাধীন কুমিল্লা-লালমাই-চাঁদপুর-লক্ষ্মীপুর-বেগমগঞ্জ সড়ক (আর-১৪০) এবং লালমাই-লাকসাম-সোনাইমুড়ী সড়ক (আর-১৪১) এর অন্তর্গত। ইতোমধ্যে পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড হতে লালমাই পর্যন্ত এবং লাকসাম বাইপাস হতে বিপুলাসার পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত সড়কাংশ বিভাগীয়ভাবে ইট/খোয়া ও বালি দ্বারা এবং পিএমপি (মাইনর) এর আওতায় এইচবিবিসহ কার্পেটিং ও সীলকোট এর মাধ্যমে মেরামত করে যানবাহন চলাচলের জন্য সচল রাখা হচ্ছে।

 

উল্লেখ্য যে, বর্ণিত সড়ক ২টির গুরুত্ব এবং বাস্তবতা বিবেচনায় বর্তমান সড়কার সড়ক দুটিকে ৪-লেনে উন্নীতকরণের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। তদানুযায়ী কুমিল্লা (টমছমব্রীজ)-নোয়াখালী (বেগমগঞ্জ) আঞ্চলিক মহাসড়ক ৪-লেনে উন্নীতকরণ শীর্ষক একটি প্রকল্প গত ২৪-১০-২০১৭ তারিখে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) কর্তৃক অনুমোদিত হয়েছে। বর্তমানে দরপত্রের কার্যক্রম শেষে কার্যাদেশ প্রদানের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। খুব শীঘ্রই প্রকল্পের বাস্তব কাজ শুরু হবে। এখানে বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, প্রস্তাবিত উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে স্থায়ীভাবে উন্নয়ন কাজ সম্পাদনের পূর্ব পর্যন্ত বর্ণিত সড়কাংশ বিভাগীয়ভাবে অতীব ক্ষতিগ্রস্ত সড়কাংশসমূহ মেরামত করতঃ যোগাযোগ ব্যবস্থা সচল রাখার সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।


  সর্বশেষ আপডেট : ২০১৮-০২-১৮ ১০:১৮:১৪    Last Update : 2018-02-18 10:18:14   Visitor: 6886804
Copyright © 2018 RTHD. All Rights Reserved
Developed and maintain by ICT Unit, Road Transport and Highways Division, Ministry of Road Transport and Bridges.